জাতীয় স্বার্থে ভোলা ব্লাড ডোনার্স ক্লাব এখন বাংলাদেশ ব্লাড ডোনার্স ক্লাবে রুপান্তরিত

এম.আমিনুল ইসলাম,ঝালকাঠী জেলা প্রতিনিধিঃ

অদ্য ০৮ই নভেম্বর সন্ধায় “মানব সেবার শপথ নিন মুমূর্ষকে রক্ত দিন” শ্লোগানকে সামনে রেখে প্রতিষ্ঠিত “ভোলা ব্লাড ডোনার্স ক্লাব” এর সোশ্যাল মিডিয়ার পাব্লিক গ্রুপ ও অফিসিয়াল নাম পরিবর্তন করা হয়। এসময় নতুন নামে নতুন লোগোও প্রকাশিত করে সামাজিক সংগঠনটি।

সংগঠনটির প্রতিষ্ঠাতা হাসিবুল হাসান শান্ত ও পরিচালক শাহ মুহম্মদ আলী হায়দার জানান এ সংগঠনটি ভোলা জেলাকে কেন্দ্র করে প্রতিষ্ঠা হলেও খুব অল্প সময়েই বাংলাদেশের সচেতন মহলের নজর কারতে সক্ষম হন। বর্তমানে এ সংগঠনটি সমগ্র বাংলাদেশ জুড়ে মানব সেবায় কাজ করে যাচ্ছে।

বর্তমানে ঢাকা, বরিশাল, চট্টগ্রাম, খুলনা, রাজশাহী, রংপুর বিভাগ সহ বিভাগীয় শহর ও ৩৮টি জেলা শহরে টিম গঠনের মাধ্যমে নিয়মিত মানব সেবায় কাজ করে যাচ্ছেন।

তিনি আরো বলেন, বাংলার শ্রেষ্ঠ বিদ্যাপীঠ ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় ,চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়,বরিশাল বিশ্ববিদ্যালয়,বি এম কলেজ সহ বহু শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে টিম গঠনের মাধ্যমে নিয়মিত মানব সেবায় কাজ করে যাচ্ছেন।

নাম পরিবর্তন সম্পর্কে জানতে চাইলে বলেন, বাংলাদেশের সর্বত্র কাজ করার সুবিধার্থে সকলের পরামর্শের মাধ্যমে নাম পরিবর্তন করা হয়।

বরিশাল ও চট্টগ্রাম বিভাগীয় সমন্বয়ক মুহাঃ মোশারফ হোসেন ফারাবি জানান, ইতিপূর্বেই বরিশাল বিভাগ ও চট্টগ্রাম বিভাগের প্রতিটা জেলা, উপজেলা ও বড় বড় শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে টিম গঠনের মাধ্যমে মানব সেবায় নিরলস প্রচেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছে ভোলা ব্লাড ডোনার্স ক্লাব। জাতীয় ভাবে দ্বিধাহীন কাজ করার প্রত্যয়েই নাম পরিবর্নের সিদ্ধান্ত গ্রহন করা হয়।

রংপুর বিভাগীয় সমন্বয়ক জানান, ভোলা ব্লাড ডোনার্স ক্লাব নামেই রংপুর বিভাগের জেলা ও উপজেলায় কার্যক্রম শুরু হয়। বর্তমান নাম মামব সেবার এ কাজকে আরো গতিময় করবে বলে আশাবাদী।

ঢাকা বিভাগীয় সমন্বয়ক মুহাঃমুহিব্বুল্লাহ্ মুহিব বলেন, যেকোনো কাজের একটা নির্দিষ্ট স্থান থাকে আর ভোলা ব্লাড ডোনার্স ক্লাব নাম শুনলে অনেকেই ভাবতো এটা শুধু ভোলাবাসীর জন্য তাই নাম পরিবর্তন সময়ের দাবী মিটিয়ে সহজেই ছড়িয়ে পরবে বাংলার প্রতিটা অঞ্চলে।

লিডার সমন্বয়ক সমন্বয়ক মুহাঃ ইউসুফ জানান টিম লিডারদের স্থানীয় চাহিদা অনুযায়ী কর্তৃপক্ষ নাম পরিবর্তনের যুগোপযোগী সিদ্ধান্ত গ্রহন করেন।

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের মেধাবী ছাত্রী ঢাকা বিভাগীয় আপডেট ম্যানেজার তনুশ্রী দাড়িয়া প্রান্তিকা জানান বিশ্ববিদ্যালয় বন্ধ থাকায় কাজ করতে সাময়িক অসুবিধা হলেও বর্তমান নাম অনেকটা এগিয়ে নিয়ে যাবে মানবতার সেবার এ সেচ্ছাসেবী সংগঠনকে।।