নাসায় টিম মহাকাশে নাটোরের দুই শিক্ষার্থী

পিন্টু স্যার বিশেষ প্রতিনিধি

মার্কিন মহাকাশ গবেষণা সংস্থা নাসায় গ্লোবাল নমিনি হিসেবে বাংলাদেশের প্রতিনিধিত্ব করছেন নাটোরের বাগাতিপাড়ার বাংলাদেশ আর্মি ইউনিভার্সিটি অব ইঞ্জিনিয়ারিং অ্যান্ড টেকনোলজির (বাউয়েট) দুই শিক্ষার্থী। খুলনা প্রকৌশল ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের (কুয়েট) শিক্ষার্থীদের সমন্বয়ে গঠিত সাত সদস্যের টিম মহাকাশে বাউয়েটের ওই দুই শিক্ষার্থী প্রতিনিধিত্ব করছেন।

তারা হলেন- কম্পিউটার সায়েন্স অ্যান্ড ইঞ্জিনিয়ারিং (সিএসই) বিভাগের পঞ্চম ব্যাচের শিক্ষার্থী বর্ণিতা বসাক তৃষা এবং একই বিভাগের ৭ম ব্যাচের শিক্ষার্থী মো. মোমিনুল হক।

বৃহস্পতিবার (১৫ অক্টোবর) বাউয়েট থেকে পাঠানো এক প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে এসব তথ্য জানানো হয়েছে।

বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, বাউয়েট ও কুয়েটের শিক্ষার্থীদের সমন্বয়ে গঠিত সাত সদস্যের টিম মহাকাশ এই কনটেস্টের ক্রিয়েট ক্যাটাগরির ভার্চুয়াল প্ল্যানেটারি এক্সপ্লোরেশন চ্যালেঞ্জে অংশ নেয়। অংশগ্রহণকারীরা ভবিষ্যতে অন্য গ্রহে মহাকাশ অভিযানে মহাকাশচারীদের ব্যবহারের জন্য টুল সেট ডিজাইন করেন।

প্রথম পর্যায়ে খুলনা অঞ্চল এতে রানার্সআপ হয়। এতে বাউয়েটের শিক্ষার্থী বর্ণিতা বসাক তৃষা ও মো. মোমিনুল হক টিমের সদস্য হিসেবে প্রতিযোগিতায় অংশগ্রহণ করেন।

বিজ্ঞপ্তিতে আরও জানানো হয়, গত ১ থেকে ৪ অক্টোবর সারা দেশে টানা ষষ্ঠবারের মতো বেসিসের তত্ত্বাবধানে এবং বেসিস স্টুডেন্টস ফোরামের সহায়তায় মার্কিন মহাকাশ গবেষণা সংস্থা নাসার উদ্যোগে ভার্চুয়াল ইভেন্ট নাসা স্পেস অ্যাপস চ্যালেঞ্জ বাংলাদেশ-২০২০ অনুষ্ঠিত হয়েছে।

বিশ্বের প্রায় ২৫০টি শহরের মতো বাংলাদেশের ঢাকা, চট্টগ্রাম, সিলেট, রাজশাহী, রংপুর, বরিশাল, খুলনা, কুমিল্লা ও ময়মনসিংহ অঞ্চল পর্যায়ে বিজয়ী ১৭টি টিম বাংলাদেশের গ্লোবাল নমিনি হিসেবে আন্তর্জাতিক পর্যায়ে অংশ নিচ্ছে।

এই প্রতিযোগিতায় আগে থেকে প্রতিযোগীদের নির্দিষ্ট করে দেয়া যে কোনো চ্যালেঞ্জে অংশগ্রহণ করে সমস্যার সমাধান বের করতে হয়। নাসা থেকে এই প্রতিযোগিতার চূড়ান্ত ফল খুব শিগগিরই ঘোষণা করার কথা রয়েছে।

বাউয়েটের ভারপ্রাপ্ত উপাচার্য কর্নেল (অব.) মোহাম্মদ হামিদুল হক প্রতিযোগিতায় অংশগ্রহণকারী বাউয়েটের সদস্যদের শুভেচ্ছা জানান এবং টিম মহাকাশের সাফল্য কামনা করেন।