রাঙ্গুনিয়ায় শিশু বলাৎকারের অভিযোগে মাদরাসা শিক্ষক গ্রেপ্তার-বাংলা খবর

এইচ.এম.ফরিদুল আলম আশরাফী
আন্তর্জাতিক রিপোর্টার

চট্টগ্রাম রাঙ্গুনিয়ায় শিশু (১০) বলৎকারের অভিযোগে নাছির উদ্দিন নামে এক কওমী মাদরাসা শিক্ষককে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ।
তিনি কক্সবাজারের চকরিয়া উপজেলার ছোট বেওলা গ্রামের নুরুল ইসলামের পুত্র। এই শিক্ষক উপজেলার স্বনির্ভর রাঙ্গুনিয়া ইউনিয়নের শাহ আহমদিয়া আজিজুল উলুম মাদরাসার শিক্ষকতা করেন। পাশাপাশি তিনি একই মাদরাসার হোস্টেল সুপারের দায়িত্বে আছেন।
তার বিরুদ্ধে বলৎকারের অভিযোগে মঙ্গলবার (২০ অক্টোবর) ভোররাতে রাঙ্গুনিয়া থানায় মামলা করেছেন ছেলেটির পিতা মো. হানিফ। সোমবার (১৯ অক্টোবর) রাতে এই ঘটনা ঘটে। একই মাদরাসার আরো একাধিক শিশু শিক্ষার্থীকে ধর্ষণের অভিযোগ রয়েছে তার বিরুদ্ধে। ৪ শিশুকে ডাক্তারি পরীক্ষার জন্য হাসপাতালে প্রেরণ করা হয়েছে।
অভিযুক্ত ব্যক্তিকে মঙ্গলবার (২০ অক্টোবর) ভোররাতে গ্রেপ্তার করা হলেও সকালে তাকে কারাগারে প্রেরণ করা হয়েছে।

সহকারী পুলিশ সুপার(রাঙ্গুনিয়া সার্কেল) মো. আনোয়ার হোসেন শামীম বাংলা খবরকে বলেন, “মামলা দায়েরের খবর পেয়ে অভিযুক্ত নাছির পালিয়ে যাওয়ার পরিকল্পনা করেন। কিন্তু তার আগেই অভিযান চালিয়ে তাকে আমরা আইনের আওতায় নিয়ে আসি।’’
জানা গেছে, অভিযুক্ত মোহাম্মদ নাছির দুই বছর আগে স্বনির্ভর রাঙ্গুনিয়া ইউনিয়নের একই মাদরাসায় শিক্ষকতায় নিযুক্ত হন। এতদিন তার সন্দেহজনক বিকৃত রুচির সম্পকে ছাত্রদের মধ্যে কানাঘুঁষা থাকলেও থানায় অভিযোগ দেয়ার সাহস করেনি কেউ। রুটিন করে এসব শিক্ষার্থীকে প্রতি রাতে ভয় দেখিয়ে ধর্ষণ করতো। প্রাথমিক ধর্ষণের ঘটনা স্বীকার করেছে ওই ব্যক্তি।
নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক এক শিশুর মা বলেন, ” ছেলেকে আলেম বানানোর জন্য মাদরাসায় ভর্তি করিয়েছিলাম। কিন্তু এসব হুজুরদের জন্য আশাটা ছেড়ে দিয়েছি।