1. admin@banglakhobor.com.bd : admin :
  2. md.assmaul.hossen.281@gmail.com : Assmaul : Assmaul Hossain
  3. dihandihan3232@gmail.com : Dihan Dihan : Dihan Dihan
  4. hasanfbd@gmail.com : Mehedi Hasan : Mehedi Hasan
  5. mizanjic@gmail.com : Mizanur Rahman : Mizanur Rahman
ইসলামপুরে নিজস্ব অর্থায়নে সিঙ্গাপুর প্রবাসী সড়ক নির্মাণ - বাংলা খবর
শুক্রবার, ১৬ এপ্রিল ২০২১, ০৮:৪৯ অপরাহ্ন

ইসলামপুরে নিজস্ব অর্থায়নে সিঙ্গাপুর প্রবাসী সড়ক নির্মাণ

Ruhul Amin
  • Update Time : বুধবার, ২৪ ফেব্রুয়ারী, ২০২১
  • ৯৪ Time View

রুহুল আমিন , জামালপুর সংবাদদাতাঃ
ইসলামপুর উপজেলার গুঠাইল হাট পয়েন্ট থেকে সাপধরীর প্রজাপতি বাজার পর্যন্ত সড়ক নির্মাণ কাজ শুরু করেছেন উপজেলার সাপধরী ইউনিয়নের কাসারি ডোবা গ্রামের সিঙ্গাপুর প্রবাসী সবুজমিয়া তার নিজ অর্থায়নে যমুনার বুকে জেগে উঠা বালুচরের ওপর দিয়ে ১০ কিলোমিটার সড়ক নির্মাণের কাজ শুরু করেছেন। এর ফলে দুর্ভোগে এর হাত থেকে বেঁচে বেঁচে যাবেন উপজেলা সদর থেকে বিচ্ছিন্ন ও যমুনা নদী বেষ্টিত সাপধরী ইউনিয়নের বিভিন্ন গ্রামে স্কুল-কলেজ পড়ুয়া শিক্ষার্থীরা হাজার হাজার মানুষ। সেই সঙ্গে সুগম হবে তাদের উৎপাদিত কৃষিপণ্য পরিবহনের পথ। এলাকাবাসী জানান, সাপধরী ইউনিয়নের কাসারি ডোবা গ্রামের সিঙ্গাপুর প্রবাসী সবুজ মিয়া (৩৫)এ দুর্গম অঞ্চলের মানুষের যাতায়াতের কোন সড়ক না থাকায় এতদিন তারা বালুচর মারিয়ে পায়ে হেঁটে উপজেলা সদরসহ স্কুল-কলেজে চলাচল করত। তাদের উৎপাদিত কৃষিপণ্য দু চাকার ঘোড়ার গাড়ি, কাধ বা মাথায় বহন করে গুঠাইল হাটে বিক্রি করতো।এ সড়কের নির্মাণ কাজ শেষ হলে এই দুর্গম অঞ্চলের প্রতিদিন হাজার হাজার মানুষের কষ্ট লাঘব হবে। সরজমিনে গিয়ে দেখা গেছে নির্মাণাধীন এ সড়কের পাশে বিভিন্ন পয়েন্টে একাধিক নলকূপ স্থাপন করে শ্যালো ইঞ্জিন এর মাধ্যমে পানি উত্তোলন করে সড়কের বালু ভিজানো হচ্ছে। এর ওপরআখের ছোপড়া বসানো হচ্ছে এরপর আবারো পানীয় বালু দিয়ে ঐই সড়ক নির্মাণ কাজ করার সম্পন্ন করা হবে। এই সড়ক নির্মাণ কাজে প্রতিদিন ৪০ থেকে ৫০ জন শ্রমিক কাজ করছে প্রায় এক মাস থেকে। এ সড়ক নির্মাণ করতে সময় লাগবে কমপক্ষে আরো ২০ দিন সড়ক নির্মাণে প্রাথমিকভাবে ব্যয় ধরা হয়েছে ৬ লাখ টাকা। জানা যায় নদী ভাঙ্গনের কারণে যমুনা ও এর কয়েকটি শাখা নদী বেষ্টিত এ সাপধরী ইউনিয়ন যুগযুগ ধরে এ দুর্গম অঞ্চলউপজেলা সদর থেকে যোগাযোগ বিচ্ছিন্ন রয়েছে। দৈনন্দিন কাজে এ অঞ্চলের মানুষকে উপজেলা,জেলা সদরসহ রাজধানীতে যাতায়াত করতে হয়।যমুনার জেগে ওঠা চরে সংযোগ সড়ক না থাকায় ইউনিয়ন বাসির দৈনন্দিন যাতায়াতে দুর্ভোগ পোহাতে হয় । বেশি বিপাকে পড়েছেন স্কুল-কলেজের শিক্ষার্থীসহ এ অঞ্চলের জরুরি রোগী উৎপাদিত কৃষি পণ্য পরিবহনের নিয়োজিতরা। এসরক নির্মাণ হলে পণ্য পরিবহন ব্যবস্থার সহজতর হবে দুর্ভোগের অবসান হবে শিক্ষার্থীসহ হাজার হাজার মানুষের যাতায়াতের। এ মহৎ কাজের পেছনে আপনার কোন উদ্দেশ্য আছে কিনা এমন প্রশ্ন করা হলে প্রবাসী সবুজ মিয়া বলেন আমি ও আমার জ্ঞাতিগোষ্ঠী জন্মগতভাবে আমি আওয়ামী রাজনীতির সঙ্গে জড়িত। আমি প্রথমে এ অঞ্চলের ভাগ্যবঞ্চিত মানুষের যাতায়াতের দুর্ভোগ অবসান ও দ্বিতীয়ত সুযোগ্য বঙ্গবন্ধু কন্যা মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার দেশের জন্য কাজ করো এমন নির্দেশনা সাড়া দিয়েই এই পরিকল্পনা বাস্তবায়নের লক্ষ্যে কাজ শুরু করেছি। তিনি আরও বলেন আমি এ ছাড়াও খেটে খাওয়া মানুষের জীবনমান উন্নয়নে লেট্রিন টিউবয়েল গরীব মেধাবী ছাত্রদের আর্থিক সহযোগিতা অসহায় গরিব রোগীদের চিকিৎসা আর্থিক সাহায্য প্রদান করে যাচ্ছি। তারপরে তিনি বলেন আমার মুরুব্বী উপজেলা আওয়ামীলীগের সভাপতি ধর্ম প্রতিমন্ত্রী আলহাজ্ব ফরিদুল হক খান দুলাল এমপির প্রত্যক্ষ সহযোগিতা পরামর্শ ও তার দিকনির্দেশনা আমি এসব কর্মকাণ্ড চালিয়ে যাচ্ছি মোট কথা দলকে আরও শক্তিশালী করার লক্ষ্যে আমার এসব উদ্যোগ হাতে নেয়া হয়েছে এছাড়াও চরবাসীর এ সড়ক নির্মাণের দাবি দীর্ঘদিনের।

Please Share This Post in Your Social Media

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

More News Of This Category
© All rights reserved © 2021 Banglakhobor.com.bd
Theme Customized BY WooHostBD
%d bloggers like this: